ঢ | বাংলা | ব্যঞ্জনবর্ণ

ঢেলা

সিপ্রিনিফর্মিস (Cypriniformes) বর্গের সিপ্রিনিডি (Cyprinidae) গোত্রের ওস্টিওব্রামা (Osteobrama) গণের অন্তর্ভূক্ত  ঢেলা মাছের বৈজ্ঞানিক নাম Osteobrama cotio cotio। ঢেলা ছাড়াও এই মাছ স্থানীয়ভাবে কেটি, মৌমাছ, চেলা, মোয়া (মোলা নয়) ইত্যাদি নামেও পরিচিত।

ঢেলা মাছের মুখ ও ঠোঁট ছোট। স্পর্শী অনুপস্থিত। দেহ  পার্শ্বীয়ভাবে চাঁপা,  বিশেষ করে বক্ষদেশ (কানকো পাখনার পিছন থেকে পায়ু পাখনা পর্যন্ত) তীক্ষ্ণ ভাবে চাপা। দেহের পৃষ্ঠপ্রান্ত অনেক উত্তল এবং অঙ্কীয়প্রান্ত তুলনামূলক কম উত্তল। পার্শ্বরেখা সুস্পষ্টভাবে দেখা যায়। দেহের উপরিভাগের আঁইশ ছোট ফোঁটাসহ রূপালি বর্ণের হয়ে থাকে। পায়ু পাখনা লম্বা। পুচ্ছ পাখনা স্পষ্ট ভাবে দু’ভাগে বিভক্ত। ঢেলা মাছের গড় দৈর্ঘ্য ১১ সেমি. পর্যন্ত হয়ে থাকে।
 
এ মাছ সব ধরণের জলাশয়ে বাস করে। তবে প্রধানতঃ নদী, প্লাবনভূমি, বিল, বাঁওড়, খাল এবং পুকুর বেশী পাওয়া যায়।  ঢেলা মাছ সর্বভূক তবে প্রধানতঃ উপরি ভাগের খাদ্য খায়। পূর্ণ বয়স্ক মলা এককোষী এবং তন্তুজাতীয় শেওলা, উদ্ভিদ ও প্রাণী প্লাঙ্কটন, ডেব্রিজ ইত্যাদি খেয়ে থাকে।

ঢেলা মাছ বছরে দু’বার প্রজনন করে। এদের প্রজননের সবচেয়ে উপযুক্ত সময় মে থেকে জুলাই মাস। গড়ে ডিম ধারণ ক্ষমতা প্রায় ১০৫০ থেকের ৯৩৬০টি। ধান ক্ষেতে কার্পিও মাছের সাথে ঢেলা মাছ চাষে ভাল উৎপাদন পাওয়া যায়।

ঢেলা

ঢেলা



Visited 120 times, 1 visits today | Have any fisheries relevant question?

Contributor:

বিডিফিশের লেখক এবিএম মহসিন ফিশারিজ বিষয়ে নিয়মিত লিখেন বিডিফিশ বাংলায়। এছাড়াও মাঝে মাঝে লিখেন BdFISH Feature এ। এছাড়া ছবি তোলাতেও তার নেশা রয়েছে যা প্রকাশিত হয় বিডিফিশ গ্যালারিতে

Leave a Reply